ফটো ইডিটিং এর কাজ শিখুন একদম প্রফেশনাল ভাবে।

25
604

ফটোশপ :

আমরা যারা অনলাইনে কাজ করি তাদের প্রত্যেকের ফটোশপ সম্পর্কে জানা আবশ্যক। কারণ প্রতিটা মুহূর্তেই ফটো ইডিটিং এর সম্মুখে পড়তেই হবে। অনলাইনে কাজ করতে হলে আপনাকে ফটোশপের দক্ষতা অর্জন করতে হবে। তাই ফটোশপের সব সিস্টেম গুলো আজকের এই আর্টিকেলে তুলে ধরার চেষ্টা করবো।

ফটো ইডিট করতে গেলে প্রথমেই আপনাকে যে কোন একটি অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে। আপনি চাইলে আপনার মন মতো একটি অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন। তবে অনলাইন জগতে সব চেয়ে বেশী ব্যবহৃত হয় “টিকস আর্ট” অ্যাপটি। চাইলে আপনি এই পিকস আর্ট অ্যাপসটি ব্যবহার করতে পারেন। গুগল প্লেস্টোরে পিকস আর্ট অ্যাপটির জনপ্রিয়তা আকাশ ছোয়া।
আজকের এই আর্টিকেলে পিকসআর্ট অ্যাপটি নিয়ে ফোটোসপের কাজ শিখাবো।

বিভাবে ফটো ইডিটিং করবো

প্রথমেই আপনাকে ফটো ইডিটের জন্য একটি অ্যাপস ডাউনলোড করতে হবে।
ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে প্লেস্টোরে গিয়ে সার্চ করতে হবে Picsart লিখে। তারপর অ্যাপটি আসবে এবং ইন্সটল করতে হবে। ইন্সটল করার পর অপেন করুন। ওপেন করার পর কিছু পারমিশন চাইতে পারে সেগুলোকে অ্যালাও করে দিন। অ্যালাও করার পর আপনার জন্য পিকস আর্ট অ্যাপটি প্রস্তুত হয়ে যাবে। এবার আপনার ফটো ইডিট করার পালা। অ্যাপটি ওপেন করুন, ওপেন করার পর নিচের দিকে পাঁচ টি লোগো দেখতে পারবেন।
* Home
* Discover
* + Plus
* Cup
* Man logo
এই পাঁচটির মধ্যে আপনাকে প্লাস (+) ক্লিক করতে হবে।
তারপর আপনাকে চারটা অপশন দিবে।
* Edit
* Collage
* Draw
* Camera
এগুলোর মধ্যে আপনাকে প্রথমেই যে ইডিট অপশন আছে সেখানে ক্লিক করুন।
তারপর আপনাকে আপনার গ্যালারিতে নিয়ে যাবে সেখান থেকে আপনার ইচ্ছামত ফটো নিতে পারেন।

ফটোতে লেখা ইডিটিং

এবার আপনার ছবিটা নেয়া হয়েছে। ফটো নেয়ার পর নিচের দিকে দেখতে পারবেন অনেক ফিচার রয়েছে।
সেই ফিচার গুলোর মধ্যে দেখতে পাবেন Text লেখা আছে। সাইটে স্কডল বা ধাক্কা দিলেও লেখাটি দেখতে পারবেন। টেক্সট লেখাটির উপর চাপদিলে আপনাকে লিখতে বলবে। এবার আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী লিখুন আর ওকে বাটনটিতে বা টিক চিন্হ তে চাপ দিন। এবার লেখাটি আপনার ফটোর মাঝামাঝি চলে আসবে।
লেখাটি ছোট বা বড় করার জন্য তীর আইকন দেখতে পারবেন সেখানে ধরে টানা টানি করুন।

কালার

লেখাটিকে আকর্ষনিয় করতে কালার করার প্রয়োজন আছে। তাই আমরা এবার কালার অ্যাড করবো। কালার দেয়ার জন্য নিচে দেখতে পারবেন কালার অপশন আছে সেখানে ক্লিক করুন। সেখানে ক্লিক করলেই অনেক কালার দেখতে পারবেন। আপনার পছন্দ মত কালার ব্যবহার করুন।
কালার ব্যবহার করা শেষ হলে ফটোতে ক্লিক করুন সেভ হয়ে যাবে।

আপনি যদি লেখার ধরন বদলাতে বা চেন্জ করতে চান তাহলে লেখাটিতে ক্লিক করুন। তারপর নিচে দেখুন Aa আছে সেখানে ক্লিক করুন। দেখবেন অনেক ধরনের লেখা চলে আসছে আপনার পছন্দ অনুযায়ী সিলেক্ট করুন। সিলেক্ট করা শেষ হলে ফটোতে চাপ দিন সেভ হয়ে যাবে।

পরবর্তিতে আরো লেখা অ্যাড করতে উপরে + আইকন আছে সেখানে ক্লিক করে টেক্সট আইকন সিলেক্ট করে লিখুন।

ফটোতে ছবি ইডিট

সেম একই নিয়মে একটি ফটো নিতে হবে। তারপর যেখান থেকে আপনি লিখেছেন তার সাইটে দেখুন Add photo লেখা আছে সেখানে ক্লিক করে আপনার গ্যালারি থেকে একটি ছবি নিয়ে ফটোতে অ্যাড করুন। আপনি চাইলে আরো ফটো নিতে পারেন। সেম আগের মতো করে উপরে ক্লিক করে অ্যাড ফটোতে চাপ দিলেই ছবি অ্যাড হয়ে যাবে।

ফটো কাটিং

আপনার ইডিট করা ফটো কিভাবে বিভিন্ন সাইজ বা কাটবেন। কাটার জন্য আপনাকে Tools অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে। তারপর বিভিন্ন সিস্টেম আসবে সেখানে দেখে সাইজ তৈরি করে নিন।

ফটোতে মার্ক ব্যবহার

আজকাল কোন কিছু মার্ক করে দেখালে সেই ফটোর প্রতি মানুষের আকর্ষন থাকে অন্য রকম। তাই এবার আমরা আমাদের ফটোতে মার্ক আইকন ব্যবহার করবো।

মার্কার ব্যবহারের জন্য আপনাকে নিচের দিকে Draw অপশন খুজে নিয়ে ক্লিক করুন। তারপর আবার ড্রতে ক্লিক করুন। তারপর ছয় নাম্বার ফিচারে ক্লিক করুন। সেখানে দেখতে পারবেন বিভিন্ন মার্কার আছে সেখানে যেটা পছন্দ ইচ্ছামত দেখে নিন। তার পর কালার ব্যবহার করুন। সেম একই ভাবে কালার ব্যবহার করুন।

আপনার ইডিট করা ফটোটি এবার সেভ করতে উপরে ( টিক) চিহৃ এর উপর ক্লিক করুন। তারপর অকে অপশনটি সিলেক্ট করুন। এবার আপনার গ্যালারিতে দেখুন পিকসআর্ট ফোল্ডারে সেভ হয়েছে।

আপনি চাইলে এই অ্যাপটি ব্যবহার করে ইউটুবের জন্য উন্নত মানের থাম্বেনাইল তৈরি করতে পারেন।

ব্রাস

আপনি চাইলে আপনার তৈরিকৃত থাম্বেনাইল এ ব্রাস ব্যবহার করতে পারেন। ব্রাস আইকনটি পাবেন অ্যাপটি অপেন করবেন, একটি ফটো বা থাম্বেনাইল সিলেক্ট করবেন। তারপর নিচের দিকে অনেক ফিচার দেখতে পারবেন। ফিচার গুলোর মধ্যেই দেখতে পারবেন Brush লেখা আছে সেখানে ক্লিক করুন। তারপর আপনার ছবিতে দাগ দিন বা টান দিন তাহলেই মজাটা দেখতে পারবেন। আপনার তৈরিকৃত লোগোতে মার্ক করতে পারেন কোন ছবি বা লেখা। তাই ব্রাস এর গুরুত্ব অনেক।

আপনার যদি ব্রাস ব্যবহারে অথবা দাগ ব্যবহার করতে ভূল হলে একেবারে সাইটে মোবাইলের মতো আইকন সেখানে ক্লিক করুন। তারপর সেই ভূল দাগের উপর ঘসুন। তাহলেই দেখতে পাবেন আপনার ভূল করা দাগ মুছে যাবে। পুনরায় আবার ব্রাস ব্যবহার করতে পারেন।

সেভ করার জন্য আগের নিয়মেই উপরে টিক আইকনে ক্লিক করুন দেখবেন সেভ হয়ে যাবে।

বর্ডার

খুব সহজেই বর্ডার ব্যবহার করে তৈরিকৃত ছবিটিকে যে কোন সাইজে রূপান্তর করতে পারেন।

সর্বশেষে আপনাকে বলার মত একটি কথা থাকে যেটা না বললে হবে না। সেই কথাটা হলো প্রতিটা কাজ আপনাকে সময় ও ধৈর্য নিয়ে কাজ করতে হবে। আর ধৈর্য ও সময় আপনাকে নিয়ে যাবে সাফল্যের সর্বোচ্চ স্হানে। তাই প্রতিটা কাজ শিখুন এবং কাজ করতে থাকুন। একদিন সফলতা আপনার কাছে একা একাই চলে আসবে। তখন আপনি যা করবেন তাই ভাইরাল হয়ে যাবে।

25 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here